২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

 

জনসেবায় দিন রাত ছুটে চলছেন নাগবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মিল্টন সিদ্দিকী

আপডেট: এপ্রিল ১৩, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

 

নেক্সটনিউজ প্রতিবেদক,কালিহাতী(টাঙ্গাইল) :টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতী উপজেলার নাগবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাকসুদুর রহমান (মিল্টন )সিদ্দিকী দেশের দূর্যোগপূর্ণ সময়ে ইউনিয়নবাসীকে করোনা বিষয়ে সচেতন করতে ও কর্মহীন ঘরে থাকা পরিবার গুলোর খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে দিন রাত কাজ করে জনপ্রিয়তার শীর্ষে অবস্থান করছেন।
 মিল্টন সিদ্দিকী দেশে করোনা প্রদূর্ভাব দেখা দেয়ার সাথে সাথেই সরকারি নির্দেশনানুযায়ী প্রথমেই জনসচেতনতা সৃষ্টি সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে যার যার ঘরে অবস্থান করার জন্য তার ইউনিয়নের ৩১ টি গ্রামের ৫৮ টি মসজিদ, ২ টি মন্দির, ৩৮ টি কবরস্থান, ৭ টি শ্মশান, ৩ টি উচ্চবিদ্যালয় ,১ টি কলেজ জনসচেতনতা মুলক প্রচার প্রচারনা চালিয়েছেন ।
প্রাথমিক পর্যায়ে তিনি প্রচার প্রচারনার জন্য মাইকিং ও লিফলেট বিতরন করেছেন এবং প্রবাস ফেরত বাড়ীর মানুষদের হোম কোয়ারাইন্টাইন নিশ্চিত করার নির্দেশনা দেয়া সহ ওই সব বাড়ীতে লাল পতাকা উড়িয়ে দিয়ে ও ষ্টিকার লাগিয়ে অন্য জনসাধারণকে ওই সব বাড়ীতে যাতায়াত না করার আহবান জানিয়েছেন। ।
এ ছাড়াও এলাকার প্রতিটি গ্রাম মহল্লা, মসজিদ- মন্দির, স্কুল, কলেজ, রাস্তা-ঘাট হাট-বাজারে জীবানুনাশক স্প্রে করেছেন। প্রত্যেকটি মসজিদ-মন্দির, হাট-বাজারে হাত ধোয়ার সাবান সরবরাহ অব্যাহত রেখেছেন। মানুষদের নিরাপত্তার জন্য নিজ অর্থে কয়েক হাজার মাক্য বিতরন করেছেন। তা ছাড়াও রতনগন্জ, মরিচা ও গান্ধিনার সাপ্তাহিক হাট বন্ধ করে দিয়ে নিয়মিত মনিটরিং করছেন। এলাকায় জনসমাগমকে নিরোৎসাহিত করতে নিরলসভাবে প্রতিদিন গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে ছুটে চলেছেন।
তার এলাকার কর্মহীন ঘরে থাকা মানুষদের মধ্যে কেউ যেন অনাহারে না থাকে সে জন্য সকলের খোঁজখবর রাখা সহ সরকারী সাহায্য ঘরে ঘরে নিজে উপস্থিত থেকে পৌঁছে দিচ্ছেন। সরকারী সহায়তার আওতায় ক্ষতিগ্রস্থ সবাইকে আনতে না পারায় তিনি ব্যক্তিগত তহবিল হতে নাগবাড়ী ইউনিয়নের সহস্রাধিক পরিবারের জন্য খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছেন।
নিজের জীবনের ঝুকি নিয়ে জনস্বার্থে প্রতিদিন সকাল ৮ টা হতে গভীর রাত পর্যন্ত ইউনিয়ন জুড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছন ।
এই সময়ে কোন গ্রামে করো মৃত্যূ সংবাদ পেলেই ছুটে যাচ্ছেন, জানাজায় অংশ নিচ্ছেন। তাছাড়াও করোনা আক্রান্ত ব্যাক্তিদের দাফন ও সৎকারের জন্য একটি শক্তিশালী কমিটি গঠন করে স্বেচ্ছাসেবকদের দায়িত্ব বন্টন করে দিয়েছেন।
মিল্টন সিদ্দিকীর জনহিতকর কর্মকান্ড এলাকায় ব্যাপক প্রসংশা কুড়িয়েছে। কালিহাতীর বিভিন্ন ইউনিয়নের মানুষ বলতে শুরু করেছেন প্রতিটি জনপ্রতিনিধি যদি মিল্টনের মত হতেন তবে বাংলাদেশ সত্যিকারের সোনার বাংলায় পরিনত হত।
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network