১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

 

ভোকেশনাল শিক্ষাকে মানসম্পন্ন করার উদ্যোগ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নেক্সটনিউজ প্রতিবেদক :   ভোকেশনাল শিক্ষাক্রমকে মানসম্মত করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনালে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশে-বিদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে সরকারি ৬৪টি টিএসসিতে চলমান ট্রেডসমূহ এবং ১০০ টিএসসি প্রকল্পের জন্য প্রস্তাবিত ট্রেডসমূহ পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর ট্রেডসমূহকে ১০টি কমন ট্রেডে পুনর্বিন্যাস করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ। এর ফলে শিক্ষাক্রম আরো দক্ষতানির্ভর হবে এবং শিক্ষার্থীরা দ্বৈত সনদায়নের সুযোগ লাভ করবে।

বিদ্যমান প্রতিষ্ঠান ও প্রকল্পের জন্য প্রস্তাবিত প্রতিষ্ঠানসমূহের জন্য যে ১০টি কমন ট্রেড নির্ধারণ করা হয়েছে সেগুলো হলো, জেনারেল ইলেকট্রিক্যাল ওয়ার্কস, ওয়েল্ডিং অ্যান্ড ফেব্রিকেশন, রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ারকন্ডিশন, প্লামবিং অ্যান্ড পাইপ ফিটিং, জেনারেল ইলেকট্রনিক্স, অটোমোবাইল অ্যান্ড অটো ইলেকট্রিক বেসিক্‌স, সিভিল কন্সট্রাক্টশন অ্যান্ড সেফটি, মেশিন অপারেশন বেসিক্‌স, অ্যাপারাল ম্যানুফ্যাকচারিং বেসিক্‌স ও আইটি সাপোর্ট অ্যান্ড আইওটি বেসিক্‌স। গত ১৩ জুন এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

তবে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ফার্ম মেশিনারি, পোলট্রি রিয়ারিং অ্যান্ড ফার্মিং এবং ফিস কালচার অ্যান্ড ব্রিডিং ট্রেডসমূহ প্রস্তাবিত ১০টি ট্রেডের অতিরিক্ত হিসেবে সরকারি ৬৪টি টিএসসিতে চাহিদা ও প্রয়োজনের নিরিখে চালু থাকবে।

কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে পুনর্বিন্যাসকৃত কোর্সগুলোর বিষয়ে অনুসরণীয় কার্যক্রম নিয়ে আরো বলা হয়েছে, ট্রেডসমূহের জন্য নতুনভাবে ন্যাশনাল ট্রেনিং অ্যান্ড ভোকেশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেমওর্য়াক (এনটিভিকিউএফ) দক্ষতা অর্জন উপযোগী পাঠ্যক্রম ও পাঠ্যপুস্তক তৈরির উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। সরকারি টিএসসিসমূহের এসএসসি ভোকেশনালের জন্য এনটিভিকিউএফ লেভেল-৩ শিক্ষাক্রম ও নম্বর নির্ধারণ করতে হবে। বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদরাসার ক্ষেত্রে এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনালের জন্য এনটিভিকিউএফ লেভেল-২ অর্জন উপযোগী বিষয় ও নম্বর নির্ধারণ করতে হবে।

কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে গত ১৩ জুন জারি করা প্রজ্ঞাপনটি কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, ব্যানবেইসের মহাপরিচালক, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যানকে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করতে বলা হয়েছে প্রজ্ঞাপনে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network