১৪ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

 

নাগরপুরে ২০০৫ ব্যাচের পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত

আপডেট: আগস্ট ২, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

 

নেক্সটনিউজ প্রতিবেদক, নাগরপুর (টাঙ্গাইল ) :
‘এসো মিলি প্রাণের উল্লাসে ’এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বর্ণাঢ্য আয়োজনে সরকারি যদুনাথ পাইলট মডেল স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের (এসএসসি ব্যাচ-২০০৫) পূর্ণমিলনী- ২০২০ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত পূর্ণমিলনীতে উপস্থিত বন্ধুদের স্মৃতিচারণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান (নৃত্য, গান, কৌতুক), কবিতা ও ছড়া আবৃত্তি এবং শুভেচ্ছা স্মারক উপহার (মগ, গেঞ্জি) বিতরণ করা হয়।

এ দিন সকাল থেকে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের রঙ্গিন ও বর্ণিল সাজে মুখরিত হয়ে উঠে (উপেন্দ্র সরবর) দিঘী পাড়। প্রায় ষোল বছর পর প্রিয় বন্ধুদের সাথে দেখা হওয়ায় আড্ডা আর গল্পে সময় পার করেন তারা। পূর্ণমিলনী উৎসবের আয়োজন কমিটির মাধ্যমে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে দিনের শুরুতেই বন্ধুদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয়। এরপর সকালের নাস্তা শেষে শুরু হয় স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য।

প্রিয় ক্যাম্পাসে সোনালী দিনগুলোর কথা স্মরণ করে তারা বলেন, পড়ালেখা শেষে কেউ চাকুরি, কেউ ব্যবসা, বিভিন্ন পেশারকেউ সংসার আর ছেলে-মেয়ে নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছি। এ ব্যস্ত সময়ে পূর্ণমিলনী আমাদেরকে যেন সোনালী দিনগুলোতে ফিরিয়ে নিয়ে এসেছে। সবাইকে একত্রিত করার এই প্রয়াস সার্থক হয়েছে উল্লেখ করে আয়োজক কমিটিকে ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তারা।
পূর্ণমিলনী উৎসবের আয়োজক কমিটির দায়িত্ব পালন করা সবাইকে শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানিয়ে এসএসসি ব্যাচ-২০০৫
‘এসো মিলি প্রাণের উল্লাসে ’এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বর্ণাঢ্য আয়োজনে সরকারি যদুনাথ পাইলট মডেল স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের (এসএসসি ব্যাচ-২০০৫) পূর্ণমিলনী- ২০২০ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত পূর্ণমিলনীতে উপস্থিত বন্ধুদের স্মৃতিচারণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান (নৃত্য, গান, কৌতুক), কবিতা ও ছড়া আবৃত্তি এবং শুভেচ্ছা স্মারক উপহার (মগ, গেঞ্জি) বিতরণ করা হয়।

এ দিন সকাল থেকে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের রঙ্গিন ও বর্ণিল সাজে মুখরিত হয়ে উঠে (উপেন্দ্র সরবর) দিঘী পাড়। প্রায় ষোল বছর পর প্রিয় বন্ধুদের সাথে দেখা হওয়ায় আড্ডা আর গল্পে সময় পার করেন তারা। পূর্ণমিলনী উৎসবের আয়োজন কমিটির মাধ্যমে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে দিনের শুরুতেই বন্ধুদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয়। এরপর সকালের নাস্তা শেষে শুরু হয় স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য।


প্রিয় ক্যাম্পাসে সোনালী দিনগুলোর কথা স্মরণ করে তারা বলেন, পড়ালেখা শেষে কেউ চাকুরি, কেউ ব্যবসা, বিভিন্ন পেশার সাথে সবাই ব্যস্ত সময় পার করছি। এ ব্যস্ত সময়ে পূর্ণমিলনী আমাদেরকে যেন সোনালী দিনগুলোতে ফিরিয়ে নিয়ে এসেছে। সবাইকে একত্রিত করার এই প্রয়াস সার্থক হয়েছে উল্লেখ করে আয়োজক কমিটিকে ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তারা।
পূর্ণমিলনী উৎসবের আয়োজক কমিটির দায়িত্ব পালন করা সবাইকে শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানিয়ে এসএসসি ব্যাচ-২০০৫ পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠান সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network