১৪ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

 

চৌহালীর পর যমুনার নিশানা এখন নাগরপুর উপজেলা

আপডেট: জুলাই ২০, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

 

মোঃ আজিজুল হক বাবু, নাগরপুর ( টাঙ্গাইল) থেকেঃ যমুনার ভয়াবহ ছোবল সিরাজগঞ্জের চৌহালীকে গ্রাস করার পর এবার হানা দিয়েছে নাগরপুরের ঐতিহ্যবাহী সলিমাবাদ ইউনিয়নে৷ ইউনিয়নের পাইকশা-মাইঝাইল গ্রাম দুটি যমুনার ভয়াবহ ভাঙ্গনের কবলে পরেছে ৷ ইতিমধ্যে একটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় নদী গর্ভে বিলিন হয়েছে। হাজার একর কৃষি জমি শস্যসহ নদীতে চলেগেছে। এই সব এলাকার নিম্ন আয়ের মানুষ গুলো তাদের বসত ভিটা ও সর্বস্ব হারিয়ে এখন দিশেহারা৷ কিন্তু পানি উন্নয়ন বোর্ড ( পা উ বি) ভাঙ্গন ঠেকাতে কোন ভুমিকা রাখতে পারেনি। যদি এখনি সরকারীভাবে কোন গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ না নেওয়া হয় তবে সলিমাবাদ ইউনিয়নটি যমুনার গর্ভে বিলিন হয়ে যেতে পারে এবং ভবিষতে দেশের মানচিত্র থেকে হারিয়ে যেতে পারে নাগরপুর উপজেলা৷

এলাকাবাসীরা জানান, স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব আহসানুল ইসলাম টিটু অতীতে ভাঙ্গন প্রতিরোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিলেও বর্তমানে ভাঙ্গন রোধে আমরা তার দৃঢ় হস্তক্ষেপ কামনা করছি ৷ না হলে ভয়াবহ বিপর্যয়ের সম্মুখিন হতে হবে সলিমাবাদ তথা নাগরপুরবাসীকে। মানচিত্র থেকে হারিয়ে যেতে পারে নাগরপুর উপজেলা।

তারা আরো বলেন,
দেশ যখন ডিজিটাল উন্নয়নের ভেতর দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে সেখানে আমরা মাথা গোজার ঠিকানা বসতবাড়ী হারিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছি। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি যাতে তিনি সলিমাবাদ ইউনিয়ন তথা নাগরপুর উপজেলাকে রক্ষা করার জন্য স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করে আমাদেরকে রাক্ষসী যমুনার ভাঙ্গন থেকে রক্ষা করবেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network