১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

 

বাসাইলে রাস্তা ও ব্রীজ ভেঙ্গে যাতায়াত বন্ধ

আপডেট: জুলাই ১৮, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মাহমুদুল হাসান, বাসাইল (টাঙ্গাইল) থেকে : বাসাইলে ঝিনাই নদী সংলগ্ন দেওলী-কামুটিয়া সড়ক ভেঙ্গে ঝিনাই নদীর পানিতে ফুলকী, কাশিল ইউনিয়নের বেশিরভাগ এলাকা প্লাবিত হয়েছে । এদিকে প্রবল স্রোতে পানিতে ভেসে গেছে বাসাইল-কাঞ্চনপুর সড়কের ছনকাপাড়া ব্রিজ । এতে উপজেলা সদরের সাথে অর্ধশতাধিক গ্রামের লোকজনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।। বৃহঃবার(১৬ জুলাই) উপজেলার কাশীল ইউনিয়নের কামুটিয়া উত্তরপাড়ার এই সড়কের প্রায়৫০ মিটার এ কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের ছনকাপাড়া এলাকার ব্রীজটি ভেঙে যায়।গতকাল বাসাইল কাচাবাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের অধিকাংশ হাটবাজর প্লাবিত হয়েছে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানাযায়, গতকয়েক দিনের ক্রমাগত বর্ষনে কাশীল ইউনিয়নের দেওলী-কামুটিয়া রাস্তাটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঝিনাই নদীর পানি বৃদ্ধি এবং তীব্রস্্েরাতে বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে বিকট শব্দে ৫০/৬০ হাত রাস্তা ভেঙ্গে যায়।ধীরে ধীরে ভাঙ্গন আরো বেড়ে কাশীল ইউনিয়নের কামুটিয়া,বাাথুলীশাদী,কাশীল,পিচুড়ী,স্থলবল্লা এবং ফুলকী ইউনিয়নের জশিহাটি,ময়থা চরপাড়া,সোনাপাড়া,কমলাপাড়া,গাছপাড়া,মুড়াকৈ,নেদার,তিরঞ্জ,ঝনঝনিয়া,ফুলকি,নিরাল,খাটরা, করটিয়াপাড়া, বালিয়া পাশ^বর্তী বাদিয়াজান, কাউলজানী,সেহরাইল,মহিষখালীসুন্না গিলাবাড়ী সহ প্রায় ২৮ টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে করে ওইসব এলাকার রাস্তাঘাট ডুবে যাতায়াত বন্ধ হয়ে গেছে।

এদিকে বুধবার বিকেল থেকে বাসাইল-নাটিয়াপাড়া পাকা সড়কের বিভিন্নস্থানে ডুবে গিয়ে বন্যার পানি কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় প্রবেশ করে। এ কারণে বাসাইল-কাঞ্চনপুর সড়কের ছনপাড়ার ব্রিজটিতে ব্যাপক স্রোত পড়ে। বৃহস্পতিবার সকালে ব্রীজটির দক্ষিনপাশে ভাঙ্গন শুরু হয়। বিকেলে ব্রিজটি হঠাৎ করে ভেঙে যায়। এতে করে কাঞ্চনপুর দক্ষিণপাড়া, পশ্চিমপাড়া, যৌতুকী, মটেশ^র,সোনারচর,ছনকাপাড়া,কোদালিয়াপাড়া,সাহাপাড়া,কাজিরাপাড়া,কামারপাড়া, শাকনায়েরচর, মির্জাপুর উপজেলার ফতেপুর, পাড়দিঘীসহ প্রায় ২০ গ্রামের মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছেন।


বাসাইল ছনকাপাড়া ব্রিজভাঙ্গা প্রসঙ্গে উপজেলা প্রকৌশলী রোজদীদ আহমেদ বলেন, ১৯৯২-৯৩ সালে কেয়ার বাংলাদেশ-এর মাধ্যমে ১১ মিটার ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়। এমনিতেও ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে ব্রীজটি ভেঙ্গে যাবার বিষয়ে জানানো হয়েছে। নতুন ব্রিজ নির্মাণের প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে এবং কামুটিয়ায় ৫০ মিটারের অধিক রাস্তা ভেঙ্গে গেছে। রাস্তাটি ঝিনাই নদীর তীরবর্তী হওয়ায় এটি মেরামতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহাযোগীতা আশা করছি।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network