২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

 

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন : মনোনয়নবঞ্চিত জাহাঙ্গীর হাই কোর্টে , আজমত উল্লার বক্তব্যে সন্তুষ্ট সিইসি

আপডেট: মে ৮, ২০২৩

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নেক্সটনিউজ প্রতিবেদক,ঢাকা : গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থিতা বাতিলের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাই কোর্টে রিট করেছেন সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। গতকাল জাহাঙ্গীর আলমের আইনজীবী নকিব শরিফুল ইসলাম হাই কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট আবেদনটি দায়ের করেন। রিটে জাহাঙ্গীর আলমের প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ার বিষয়ে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। বিবাদী করা হয়েছে, প্রধান নির্বাচন কমিশনার, গাজীপুরের রিটার্নিং কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের। এর আগে ৪ মে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থিতা বাতিলের বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীর আলমের করা আপিল নামঞ্জুর হয়। ঢাকার বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে এই আপিলের শুনানি হয়। গত ৩০ এপ্রিল মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নবঞ্চিত জাহাঙ্গীর আলমের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। ঋণখেলাপির অভিযোগে জাহাঙ্গীর আলমের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। তবে তার মা জায়েদা খাতুনের মনোনয়নপত্রটি বৈধ ঘোষণা করা হয়। গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন আজমত উল্লা খান। তিনি গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি। জাহাঙ্গীর আলম দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। আগামী ২৫ মে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে এই সিটিতে। এর আগে আজ ৮ মে প্রার্থিতা প্রত্যাহার ও ৯ মে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দের জন্য দিন ধার্য রয়েছে তফসিল অনুযায়ী।

আজমত উল্লার বক্তব্যে সন্তুষ্ট সিইসি : গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আজমত উল্লা খান আচরণবিধি ভঙ্গ করলেও তার বিনয়ী বক্তব্যে ‘অত্যন্ত সন্তুষ্ট’ প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। গতকাল রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে আজমত উল্লার ব্যাখ্যা শোনার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ‘আমরা কোনো সিদ্ধান্ত নিইনি। উনি (আজমত উল্লা) অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। আমরা তার বক্তব্যে প্রাথমিকভাবে অত্যন্ত সন্তুষ্ট।’
সম্প্রতি পাঁচ সিটি ভোটের তফসিল ঘোষণা করে কাজী হাবিবুল আউয়াল নেতৃত্বাধীন কমিশন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, গাজীপুর সিটির ভোট ২৫ মে। খুলনা ও বরিশাল সিটিতে ভোট হবে ১২ জুন। সিলেট ও রাজশাহী সিটিতে ভোট হবে ২১ জুন। ভোটের আগে আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে দুই দফায় চিঠি দেয় নির্বাচন কমিশন। কেন তার প্রার্থিতা বাতিল করা হবে না সে বিষয়ে জানতে ঢাকায় তলব করে ইসি। কাজী হবিবুল আউয়াল বলেন, ‘এ ধরনের ভুল কিছুটা অজ্ঞতাবশতঃ হয়েছে। দু-একটা সভা সিটি নির্বাচন এলাকার বাইরে হয়েছে।’ আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আজমত উল্লা সিটি নির্বাচনের আচরণবিধির পাঁচ ধারার ব্যাপারে সচেতন ছিলেন না জানিয়ে কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘শোডাউনের বিষয়টি আমরা বড় করে দেখেছিলাম। আজমত উল্লা জানান, সেদিন মনোনয়ন জমা দেওয়ার দিন ছিল। কজন কাউন্সিলর দলবল নিয়ে আসেন। ফলে একটা শোডাউনের মতো মনে হয়েছে। সিইসি বলেন, আমরা তার বক্তব্যে প্রাথমিকভাবে সন্তুষ্ট। তিনি সুন্দরভাবে আমাদের সহযোগিতা করার ও নির্বাচন আচরণবিধি যাতে ভবিষ্যতে প্রতিপালিত হয় তার চেষ্টা করবেন।’ হাবিবুল আউয়াল বলেন, কমিশন তার ‘সুন্দর’ বক্তব্য বিবেচনা করে দেখবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network