১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

 

ইতিহাসের বিভিন্ন বিষয়কে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া হবে : ডঃ শরিফ উদ্দিন আহমেদ

আপডেট: মে ৯, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নেক্সটনিউজ প্রতিবেদক : ইতিহাসের বিভিন্ন বিষয়কে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন ইতিহাস একাডেমীর নবনিযুক্ত সভাপতি প্রফেসর ডঃ শরিফ উদ্দিন আহমেদ।

ইতিহাস একাডেমির কার্যনির্বাহী পরিষদের এক ভারচুয়াল সভায় সভাপতিত্ব্কালে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন ইতিহাস একাডেমির নবনিযুক্ত সভাপতি প্রফেসর ডঃ শরিফ উদ্দিন আহমেদ । তিনি বাংলাদেশের তথা বিশ্বের ইতিহাস এবং ঐতিহ্যকে একটি অনন্য মাত্রা দান করার কথা বলেন। তিনি বলেন বর্তমান পরিস্থিতিতে করণা অতিমারি একটি অত্যন্ত আলোচিত বিষয় এটিকে ইতিহাসের একটি অংশ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত ও সংরক্ষণ করা উচিত । এছাড়াও তিনি ইতিহাস একাডেমীর আগামী সম্ভাব্য কর্মপরিকল্পনা ব্যক্ত করেন যেখানে বিগত বার্ষিক সভার আলোচিত প্রবন্ধ নিয়ে দুটি বই “ অধ্যাপক আব্দুল করিম জীবন ও কর্ম”এবং “বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ” শীর্ষক প্রকাশনা আগামী জুন মাস নাগাদ সম্পন্ন হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বই দুটি সম্পাদনার দায়িত্ব ইতিহাস একাডেমীর সহ-সভাপতি প্রফেসর ডক্টর এ কে এম শাহনাওয়াজ গ্রহণ করেন ।এছাড়াও ইতিহাস একাডেমি আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারের আয়োজন করবে বলে পরিকল্পনা করে।এ বিষয়ে মধ্যযুগীয় এবং উপনিবেশিক বাংলা নিয়ে আলোচনা করা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়।

ইতিহাস একাডেমির নতুন সভাপতি ডঃ শরিফ উদ্দিন আহমেদ বর্তমানে নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির হিস্ট্রি এবং ফিলোজফি ডিপার্টমেন্টের প্রফেসর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন । তিনি লন্ডন ইউনিভার্সিটির সওয়াস থেকে হিস্ট্রি তে পিএইচডি করেছেন এবংঅক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি থেকে বিলিট ডিগ্রি অর্জন
করেন । ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তার রয়েছে ইতিহাসে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি । তিনি তার কর্ম জীবনের অধিকাংশ সময় কাটিয়েছন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। এ ছাড়াও তিনি বিভিন্ন রকমের প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করেছেন যেমন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল মেম্বার ও বর্তমানে সিনেটর, সেন্টার ফর এডভান্স রিসার্চ ইন হিউমানিটিস এর ডিরেক্টর এবং বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত বাংলাদেশ জাতীয় আর্কাইভস ও গ্রন্থগার অধিদপ্তরের পরিচালক হিসেবে দশ বছর দায়িত্ব পালন করেছেন।

এই জ্ঞানী ব্যক্তির ৩১ টি গবেষণা প্রবন্ধ রয়েছে এছাড়াও তিনি উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বই লিখেছেন এবং অনেক বইয়ের সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন । তার প্রথম প্রকাশিত গ্রন্থ – Dacca – A Study in Urban History and Development, 1840-1885 – কার্জন প্রেস ১৯৮৬ সালে একযোগে লন্ডন ও নিওয়ার্ক থেকে বের করে I এ বিদগ্ধ ব্যক্তির প্রাপ্তির ঘরে আরো যোগ হয়েছে বেস্ট বুক এ্যাওয়ার্ড ১৯৯৮ ও ২০০৪ এবং ইউজিসি আওয়ার্ড । এছাড়াও তিনি এশিয়াটিক সোসাইটি অব বাংলাদেশ এর জয়েন্ট সেক্রেটারি ও ভাইস- প্রেসিডেন্ট, বাংলাদেশ হিস্টরিকাল সোসাইটির সম্পাদক, বাংলাদেশ হিস্টরিকাল সোসাইটির সভাপতি এবং বাংলাদেশ আর্কাইভস এবং রেকর্ড ম্যানেজমেনট সোসাইটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network