১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

 

দিনাজপুরে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৬, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

 

রফিকুল ইসলাম ফুলাল, দিনাজপুর :
৮ বছর পূর্বে পারিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে এক ব্যক্তি হত্যা মামলায় দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলায় একজন আসামীর মৃত্যুদন্ড ও দুজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন বিজ্ঞ বিচারক আনোয়ারুল হক । অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় এই মামলা হতে ৩জন আসামীকে খালাস প্রদান করা হয়েছে।

গতকাল রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৩টায় দিনাজপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-২ আনোয়ারুল হকের আদালত এ রায় প্রদান করা হয়েছে।

মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত আসামিরা হচ্ছে, দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ উপজেলার মুর্শিদহাট গরুহাটি এলাকার মৃত আফিজুল টিকরীর ছেলে আক্কাছ আলী ওরফে আলতু। যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রাপ্ত দুই আসামি হলেন বোচাগঞ্জ উপজেলার ধনতলা দফাদারপাড়ার মৃত নেফাজ উদ্দীনের ছেলে মো. রিয়াজুল ইসলাম ওরফে মশা ও একই উপজেলার মুর্শিদহাট হাজীপাড়ার আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে মো. সোহেল। মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত আসামিকে ১ লাখ জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।

দিনাজপুরে আদালত পুলিশের পরিদর্শক ইসরাইল হোসেন জানান, নিহত ও আটক আসামিদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক দ্বন্দ্ব ছিল। ২০১২ সালের ১৪ জুলাই বোচাগঞ্জ উপজেলার মুর্শিদহাট এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে মশিউর রহমান জেন্টেলকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। পরদিন ১৫ জুলাই নিহতের পিতা আব্দুর রহমান বাদী হয়ে সাতজনের বিরুদ্ধে বোচাগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বিচার চলাকালীন মামলার এক আসামি মারা যান। আজ রবিবার দুপুরে বিচারক সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে একজনের মৃত্যুদন্ড ও দুজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন। অপরদিকে মামলার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় একই এলাকার রেজাউল ইসলাম, মো. রুবেল ও রুমানা আক্তারকে খালাস প্রদান করা হয়।

রাস্ট্র পক্ষের আইনজীবী এ্যাডভোকেট মেহেরুল ইসলাম এর সাথে কথা বলে জানা যায় প্রেম ঘটিত কারনে এহত্যা ঘটে। অপরদিকে মৃত মশিউর রহমান জেন্টেল এর পিতা ও এ মামলার বাদী আব্দুর রহমান বলেন আমি এ রায়ে অনেক খুশি।

 

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network