২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

 

নীলফামারীর চাপড়া সরমজানী ইউনিয়নে পঞ্চাশ টাকার বিনিময়ে ভিজিএফ’র চালের কার্ড পেল দুস্থরা

আপডেট: জুলাই ২৭, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মোঃ নাঈম শাহ্, নীলফামারী থেকে : নীলফামারী সদর উপজেলার চাপড়া সরমজানী ইউনিয়নে পঞ্চাশ টাকার বিনিময়ে ভিজিএফের চালের কার্ড দিয়েছে বলে অভিযোগ করে বলেন ইউনিয়নের অসহায় ও দুস্থ মানুষেরা।

সোমবার (২৭ জুলাই) সারেজমিনে টাকার বিনিময়ে ভিজিএফের চাল পেয়ে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে বলেন আমাদের কাছে আগে পঞ্চাশ টাকা নিয়েছে তারপর চালের কার্ড দিয়েছে মেম্বাররা। শুধু টাকা চাল না প্রতিবন্ধিদের জন্য প্রতিবন্ধি কার্ড করে দেওয়ার বিনিময়ে টাকা নিয়েছে। টাকা ছাড়া মেম্বাররা আমাদের কোনো কিছুতে সাহায্য করে না।

ইউনিয়নের পাঁচ নম্বার ওয়ার্ডের ভিজিএফের সুবিধাভোগী তৌহিদা বেগম বলেন, আইয়ুব মেম্বার ৫০টাকা নিছে তারপর আমাকে চালের কার্ড দিয়েছে। খালি আমার কাছ থাকি টাকা নেন নাই সবারে কাছ থাকি টাকা নিছে।
অপর আরেকজন সুবিধাভোগী আব্দুস সামাদ টাকার বিনিময়ে চাল নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন , ৫০ টাকা নিছে তারপর কার্ড দিছে আইয়ুব মেম্বার। সরকার হামাক দেয়ছে এমনিতে চাউল কিন্তু মেম্বার হামাক টাকা ছাড়া কার্ড না দেয়। হামার গরিব মানুষোক যে টাকা নিয়া কার্ড দেয়ছে এইলা কি হামার বড় স্যার গোলা দেখে না ?

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অপর এক ভুক্তভোগী বলেন, শুধু যে আইয়ুব মেম্বারে কার্ডের জন্য টাকা নিয়েছে তা না ইউনিয়নের সবগুলো মেম্বারই মানুষের কাছে টাকা নিয়েছে চালের কার্ড দিয়েছে। তাই আমরা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করছি এদের বিরুদ্ধে যেন আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে চাপড়া সরমজানী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান কাছে জানতে চাইলে তিনি ব্যস্ততার কথা বলে বিষয়টি এড়িয়ে যান।

এ বিষয়ে সদর উপজেলা ত্রান ও পূর্নবাসন কর্মকর্তা রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ বলেন, এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এলিনা আক্তার বলেন, টাকা দিয়ে ভিজিএফের চালের কার্ড দেওয়ার কোনো নিয়ম নেই। এরকম যদি কোথাও হয়ে থাকে তবে তদন্ত সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network