১৮ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

 

কালিহাতীতে অবৈধ বালু উত্তোলন।।৪ শ্রমিকের জেল

আপডেট: মার্চ ২, ২০২২

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মনির হোসেন,টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ১৮টি ড্রেজার মেশিন ধ্বংস ও প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকায় বালু পরিবহনের পাইপলাইন বিনষ্ট করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। সেই সাথে বালু উত্তোলনের সাথে জড়িত ৪ জন শ্রমিককে আটক করে ৩ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

(২ মার্চ) দুপুরে উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভার পাথাইলকান্দি ও বাঁশী এলাকার এলেংজানী নদী এবং পৌলী নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলনের জন্য দায়ী ড্রেজার মেশিন ও পাইপলাইন উচ্ছেদে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল হুসেইন।
এসময় তিনি ১৮টি ড্রেজার মেশিন বাজেয়াপ্ত ও প্রায় তিন কিলোমিটার বালু পরিবহনের পাইপলাইন তাৎক্ষণিক বিনষ্ট করে বালু উত্তোলনের সাথে জড়িত ৪ জন শ্রমিককে আটক করে তিন দিন করে কারাদণ্ড প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার মোহনপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে বেলাল মিয়া (৪৫), একই এলাকার শাজাহান আলীর ছেলে ইকবাল মিয়া (২২), নাজমুল হোসেনের ছেলে আব্দুল আজিজ (৩৩) ও লাল মিয়ার ছেলে হামিদ (২০)।অভিযানকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল হুসেইন জানান, নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের মধ্য দিয়ে নদীর দুই পাড়ের মানুষের ফসলী জমিসহ বাড়ি-ঘর ভেঙ্গে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি যাতে সৃষ্টি না হয় সে ব্যাপারে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক মহোদয়ের নির্দেশ মোতাবেক আমরা অবৈধ ড্রেজারের বিরুদ্ধে উপজেলার পাথাইলকান্দী ও বাঁশী এলাকার এলেংজানী নদী এবং পৌলী নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করি। অভিযানকালে ১৮টি ড্রেজার মেশিন বাজেয়াপ্ত করি এবং তিন কিলোমিটারের মতো বালু পরিবহনের পাইপলাইন বিনষ্ট করতে সক্ষম হয়েছি। এছাড়াও বালু উত্তোলনের সাথে জড়িত ৪ জন শ্রমিককে আটক করে ৩ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। আমাদের এই অভিযানের অগ্রগতি ও সাফল্য ধরে রাখতে আমরা আগামীতেও এটা অব্যাহত রাখবো।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network